1. bangladeshbartatelevision@gmail.com : admin :
  2. ridoyhasanjoy@gmail.com : Reporter-1 :
  3. journalistrhasan@gmail.com : Reporter-2 :
  4. bangladeshbarta1@gmail.com : Reporter-3 :
  5. abdullah957980@gmail.com : Ramjan Bhuiyan : Ramjan Bhuiyan
প্রধান খবর
বাংলাদেশ বার্তার জীবননগর প্রতিনিধি পারভেজ সুমন’র ইন্তেকাল ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে ফেইসবুকে কুরুচিপূর্ণ পোস্ট দেয়ার প্রতিবাদে কোম্পানীগঞ্জে মানববন্ধন চাঁদপুরে ১০৯টি পরিবার সহ প্রধানমন্ত্রীর ঘর উপহার পেল ৫৩ হাজার পরিবার শাহরাস্তিতে ৩০ পরিবার পেল প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর চরভদ্রাসনে ভূমিহীনদের মাঝে ঘরের চাবি ও জমির দলিল হস্তান্তর চরভদ্রাসনে গলায় তার পেচিয়ে যুবকের আত্ম্যহত্যা নওগাঁয় দ্বিতীয় পর্যায়ে বাড়ি পেলো ৫০২টি ভূমিও গৃহহীন পরিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২০ জাতের আম বিদেশে রপ্তানি নির্বাচনে বিঘ্ন সৃষ্টিকারী ব্যক্তিদের কঠর হস্তে দমন করা হবে-বরিশালে পুলিশ কমিশনার চর কুকরী মুকরিকে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার ঘোষনা

আমদানিকৃত পেয়াজ নিয়ে বিপাকে যশোরের ব্যাবসায়ীরা

  • Tuesday, January 19, 2021
  • 42 বার পড়া হয়েছে

মোঃরাকিব হোসেন,যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ
ভারতীয় পেয়াজ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন বিক্রেতারা। আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজ এবং দেশি পেঁয়াজের দাম সমান হওয়ার কারণে ক্রেতারা ভারতের আমদানি করা পেঁয়াজ কিনতে চাচ্ছেন না। এ কারণেই বাজারে ভারতীয় পেঁয়াজের চাহিদা কমে গেছে। আর চাহিদা কমে যাওয়ায় ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ রেখেছেন ব্যবসায়ীরা। আমদানি বন্ধ থাকলেও দেশের বাজারে পেঁয়াজ নিয়ে কোনো ধরনের সমস্যা তৈরি হবে না। কারণ দেশে এখন পেঁয়াজের ভরা মৌসুম। ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।
পেঁয়াজের ওপর ১০ শতাংশ আমদানি শুল্ক আরোপের ফলে বাংলাদেশ ও ভারতে উৎপাদিত পেঁয়াজের দাম এখন সমান। দুদেশের পেঁয়াজের দামে কোনো পার্থক্য নাই। স্বাদে অতুলনীয় বলে ক্রেতাদের আগ্রহ দেশি পেঁয়াজের প্রতি। আপাতত হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ করেছেন সেখানকার আমদানিকারকরা। তবে ঘোষণা না দিলেও দেশের অন্যান্য স্থলবন্দর দিয়েও আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজ দেশের বাজারে আসছে না বলে জনিয়েছে যশোরের কিছু ব্যাবসায়ীরা।
কর্তৃপক্ষ জানান, দাম যদি দেশি পেঁয়াজের তুলনায় আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজের বেশি হয় বা সমান হয়, তাহলে কী কারণে ক্রেতারা তা কিনবেন? যেকোনো বিচারে আমদানি করা পেয়াজের তুলনায় দেশি পেঁয়াজ উত্তম।

ভারতে পেঁয়াজের মূল্য, পরিবহন খরচ ও বাংলাদেশের ১০ শতাংশ আমদানি শুল্ক যুক্ত করে বর্তমানে ভারত থেকে আমদানির পর প্রতিকেজি পেঁয়াজের দাম দাড়ায় ৩৫ থেকে ৩৭ টাকা। কিন্তু দেশের বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা করে। পাইকারি ও খুচরা ব্যাবসায়ীর মুনাফা ও অন্যান্য খরচ মিটিয়ে তা বাজার থেকে ক্রেতা কিনছেন সর্বোচ্চ ৪০ টাকা কেজি দরে।
যশোরের নওয়াপাড়া এক আরৎ দার জানান, ভারত থেকে পেঁয়াজ আসায় আমাদের কৃষকরা যেমন দাম ভাল পাচ্ছেন না তেমন আমরাও বিপাকে পড়েছি। তিনি আরও জানান সাধারন জনগন দেশি পেঁয়াজ রেখে বিদেশী পেঁয়াজের প্রতি আকর্ষিত হয়ে পড়ছে দিনদিন।

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

MD

Customized BY NewsTheme