1. bangladeshbartatelevision@gmail.com : admin :
  2. ridoyhasanjoy@gmail.com : Reporter-1 :
  3. journalistrhasan@gmail.com : Reporter-2 :
  4. bangladeshbarta1@gmail.com : Reporter-3 :
  5. abdullah957980@gmail.com : Ramjan Bhuiyan : Ramjan Bhuiyan
প্রধান খবর

মহেশখালী পৌরসভায় কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি? মেয়র মকসুদ, শাহাজাহান নাকি নতুন চমক!

  • Saturday, February 6, 2021
  • 21 বার পড়া হয়েছে

মহেশখালী প্রতিনিধিঃ

নির্বাচন কমিশনের সকল সিদ্ধান্ত ঠিক থাকলেই চলতি সপ্তাহেই ঘোষিত হতে পারে মহেশখালী পৌরসভার তফশিল। আগামী ২০শে মার্চ অনুষ্ঠিত হতে পারে নির্বাচন।

নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই আলোচনা হচ্ছে নৌকার মনোনয়ন নিয়ে। কে পাচ্ছেন নৌকার মনোনয়ন? সে হিসাব-নিকাশ কষতে শুরু করছে সাধারন ভোটার থেকে শুরু করে দলীয় নেতাকর্মীরা। আবারও কি নৌকার মনোনয়ন পাচ্ছেন বর্তমান মেয়র মকসুদ মিয়া নাকি নানা বির্তকিত কর্মকান্ডে মনোনয়ন বঞ্চিত হচ্ছেন সেটা নিয়ে আলোচনা চলছেই সর্বত্রেই।

তবে তিনি দলের প্রতি বিচলিত নন বলে জানা গেছে, বরাবরই দলের প্রতি আস্থা তার। তার সময়ে পৌরসভায় অবকাঠামোগত রাস্তাঘাট সহ ব্যাপক উন্নয়নের জন্য আবারও নগর পিতা হিসাবে চান এলাকাবাসী। তবে ১,২ ও ৩ ওয়ার্ডে তুলনামূলক উন্নয়ন না হওয়ায় রাজনৈতিক ক্ষোভ আছে উক্ত ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের।

অন্যদিকে সাবকে মেয়র গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সরওয়ার আজমের নাম শুনা গেলেও মূলত নৌকার মনোনয়ন পেতে জেলা থেকে কেন্দ্রে পর্যন্ত জোর লবিং চালিয়ে যাচ্ছে তার ভাই মহেশখালী উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি মোঃ শাহাজান। তিনি কয়েক দিন আগে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডেন্ট সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানকের সাথে ঢাকা থেকে কক্সবাজারে এসেই আলোচনায় চলে আসেন। অনেকেই মনে করেন জাহাঙ্গীর কবির নানকের হাত ধরেই কেন্দ্র থেকে মনোনয়ন ভাগিয়ে আনতে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন এই যুবলীগ নেতা। বিগত ৫ বছরে দলীয় কোন প্রোগ্রাম ও নেতাকর্মীদের থেকে দুরে ছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

এদিকে গেল কয়েকবার পৌরসভা নির্বাচনে মূলত মেয়র পদে প্রতিদন্ডী হয় ক্ষমতাসীন দলের দুই পরিবারের মধ্যেই। বর্তমান মেয়র মকসুদ মিয়া ও সাবেক মেয়র সরওয়ার আজমের পরিবার নির্বাচন আসলেই অস্থিত্বের লড়াইয়ে মেতে উঠেন সবসময়। তাদের দুই পরিবারের মধ্যেই রয়েছে চরম বিরোধ। তা নিয়ে প্রকাশ্যই ক্ষোভ প্রকাশ করেন দলীয় নেতাকর্মীরা। তারা বলেন এই দুই পরিবারের বিরোধে দলে গ্রুফিং সৃষ্টি হচ্ছে। সংঘর্ষের আশংকা হচ্ছে নেতাকর্মী ও সমর্থকের মধ্যেই। ফলে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুর্ণ হচ্ছে। তাই বিরোধ না করে নৌকার মনোনয়ন যে পান না কেন তার পক্ষে কাজ করার জন্য অনুরোধ করেন।

অন্যদিকে দল থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সিভি চাইলে ৯ জন প্রার্থী সিভি জমা দেন বলে জানা গেছে একটি সূত্রে। তারা হলেন বর্তমান মেয়র মকসুদ মিয়া, সাবেক উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোঃ শাহাজাহান,আওয়ামী লীগ নেত ও সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাবেক পূর্ণ চন্দ্র দে, আওয়ানী লীগ নেতা ও সাবেক চেয়ারমান সামশুল আলম, উপজেলা ত্রাণ বিষায়ক সম্পদক নাছির উদ্দিন, পৌর কাউন্সিলর সালামত উল্লাহ,মহেশখালী উপজেলা তাঁতীলীগের সভাপতি ছাদেকুল্লাহ ছিদ্দিকী, মহেশখালী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হালিমুর রশিদ,ও পৌর যুবলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক নেওয়াজ কামাল।

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের একজন শীর্ষনেতার বরাত দিয়ে জানা যায়, মহেশখালী পৌরসভা নিয়ে ইত্যিমধ্য কেন্দ্রীয় পর্যায়ে আলোচনা হচ্ছে। তাই আগামী পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার বিজয় ধরে রাখতে, একজন ত্যাগী, বিতর্কমুক্ত ও জনপ্রিয় ব্যক্তিকে নৌকা মনোনয়ন দেবেন মানানীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তবে কি সকল জল্পনা-কল্পনা বাদ দিয়ে নতুন চমক নিয়ে আসছে কি নৌকা? সেই হিসাব মিলাতেই ব্যস্ত সাধারন ভোটার থেকে শুরু করে মহেশখালীর সর্বস্তরের জনসাধারণের।

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

MD

Customized BY NewsTheme