1. bangladeshbartatelevision@gmail.com : admin :
  2. ridoyhasanjoy@gmail.com : Reporter-1 :
  3. journalistrhasan@gmail.com : Reporter-2 :
  4. bangladeshbarta1@gmail.com : Reporter-3 :
  5. abdullah957980@gmail.com : Ramjan Bhuiyan : Ramjan Bhuiyan
প্রধান খবর
গুরুদাসপুরে মাদক, সন্ত্রাস ও সাইবার ক্রাইম রোধে মতবিনিময় সভা নাটোরে চাঁদার জন্য আঙ্গুলের নখ উপড়ে ফেললো যুবলীগ : আটক ২ সিংড়ায় ব্যবসায়ীকে মারপিটে এএসআইয়ের বিরুদ্ধে মানববন্ধন রহনপুর রেলস্টেশন পরিদর্শন করলেন নেপালের রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সাবেক মেয়র মিরাজুল ইসলাম প্রামাণিক পাঁচবিবিতে দুদু এমপির রোগ মুক্তির কামনায় পৌর আওয়ামীলীগের দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে গাঁজাসহ একজন গ্রেফতার নাচোলে অভিনব কৌশলে মাদক পাচারকালে ডিএনসির হাতে ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার ২ রাজশাহীতে সেনা সদস্য আত্মহত্যায় বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২ শিক্ষিকা গ্রেপ্তার গফরগাঁওয়ে গরু চোর ও পাঁচ জুয়াড়ি আটক

রাজশাহী প্রি-প্রেইড মিটার লাগানো বন্ধে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ

  • রবিবার, ৩১ জানুয়ারী, ২০২১

শাহিন সাগর, বিশেষ প্রতিনিধি, রাজশাহী: রাজশাহী অঞ্চলে প্রি-পেইড বৈদ্যুতিক মিটার বসানোর কাজ শুরু করেছে নর্দার্ন ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড (নেসকো)।

প্রি-পেইড বৈদ্যুতিক মিটার বসানোর প্রতিবাদে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রি-পেইড বৈদ্যুতিক মিটার বসানো নিয়ে ক্ষোভে ফুঁসে উঠেছেন রাজশাহীবাসী। রাজশাহী মহানগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে গণশুনানির আগে প্রি-পেইড মিটার না লাগানোর জন্য নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড (নেসকো)-র প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। আজ (৩১ জানুয়ারি) রোববার সামাজিক সংগঠন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের এক বিক্ষোভ-সমাবেশ থেকে এ দাবি জানানো হয়।

প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে
মিটার না লাগানোর জন্য নেসকো-কে ১৫ দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছিল। নেসকো বিষয়টি আমলে না নেওয়ার কারণে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। রোববার বেলা ১১টার দিকে রাজশাহী মহানগরীর জাদুঘর মোড় থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে হেতেমখাঁ এলাকায় নেসকো কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। বিক্ষোভ মিছিল শেষে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তারা বলেন, রাজশাহী অঞ্চলে আগে গ্রাহকদের বাড়িতে এনালগ বৈদ্যুতিক মিটার ছিল। সেই মিটার সরিয়ে ডিজিটাল মিটার বসানো হয়েছে। এখন আবার ডিজিটাল মিটার ফেলে দিয়ে প্রি-পেইড মিটার বসানো হচ্ছে। যেখানে রাজশাহীতে কোনো গ্রাহকের বিল বকেয়া নেই। কিন্তু সচল মিটার ফেলে প্রি-পেইড মিটার লাগানো হচ্ছে। এটি জনগণের পকেট কাটার একটি ফন্দি। এ মিটার জনগণের ভোগান্তির কারণ হয়ে দাঁড়াবে। এটা তারা বাস্তবায়ন হতে দেবেন না। গণশুনানির আগে প্রি-পেইড মিটার বসাতে গেলে কোনো অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটলে তার জন্য দায়ী থাকবে নেসকো। তারা বলেন, নেসকো বলছে প্রি-পেইড মিটার দেওয়া হচ্ছে বিনামূল্যে। কিন্তু তা সঠিক নয়। মিটারের মূল্য গ্রাহকের কাছ থেকেই কেটে নেওয়া হবে। তাছাড়া মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলো কখন কত টাকা গ্রাহকের কাটে তা যেমন টের পাওয়া যায় না তেমনি প্রি-পেইড মিটারে কখন কত টাকা কাটা হবে সেটারও ঠিক নেই। ছুটির দিন বা রাত ৮টার পর প্রি-পেইড মিটারের কার্ড পাওয়া যায় না। কত টাকা মিটার থেকে কাটা হয়েছে সেটাও বোঝা যায় না। এ জন্য একজন গ্রাহকের যদি মধ্যরাতে মিটারের টাকা শেষ হয় তাহলে সারারাত তাকে অন্ধকারেই কাটাতে হবে। সে জন্য তারা এ প্রি পেইড
মিটার বর্জন করছেন। বক্তারা আরও বলেন, এরই মধ্যে ঢাকা, চট্টগ্রাম, মুন্সিগঞ্জ, নরসিংদী, খুলনা, যশোরসহ বিভিন্ন স্থানে প্রি-পেইড মিটার লাগানো হয়েছে। এসব এলাকার মানুষ মহাবিপদে পড়েছেন। রাজশাহীর মানুষকে তারা এমন বিপদে পড়তে দিতে চাননা। নেসকো যদি এ মিটার বসাতেই চায় তাহলে গণশুনানি করে সাধারণ মানুষকে এর উপকারিতা বোঝাতে হবে। তার আগে নয়।

সম্প্রতি নগরের কুমারপাড়া এলাকায় প্রি-পেইড মিটার লাগানোর সময় নেসকোর ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কর্মীদের বাধা দেন নগর আওয়ামী লীগের নেতা ডাবলু সরকার। তিনি সেদিন কর্মীদের ফিরিয়ে দেন। রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের এ সমাবেশে ডাবলু সরকার বলেন, এখন থেকে মহানগরীর একটি বাড়িতেও প্রি-পেইড মিটার লাগানো যাবে না। এ মিটার লাগানোর আগে মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ডেই গণশুনানি করতে হবে। গণশুনানির আগে এ মিটার কেউ গ্রহণ করবেনা। এরই মধ্যে যেসব বাসাবাড়িতে প্রি-পেইড মিটার লাগানো হয়েছে সেগুলো খুলে নেওয়ার জন্যও এ মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা আহবান জানান।
সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি মো. লিয়াকত আলী। বক্তব্য দেন- মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, ওয়ার্কার্স পার্টির রাজশাহী মহানগরের সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ প্রামাণিক দেবু, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মামুন, রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. জামাত খান ,বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আবদুল মান্নান, রাজশাহী চেম্বারের সাবেক পরিচালক হারুনার রশিদ প্রমুখ।

মোঃ শাহিন সাগর
বিশেষ প্রতিনিধি, রাজশাহী।
৩১ জানুয়ারি ২১

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

MD

Customized BY NewsTheme