1. bangladeshbartatelevision@gmail.com : admin :
  2. ridoyhasanjoy@gmail.com : Reporter-1 :
  3. journalistrhasan@gmail.com : Reporter-2 :
  4. bangladeshbarta1@gmail.com : Reporter-3 :
  5. abdullah957980@gmail.com : Ramjan Bhuiyan : Ramjan Bhuiyan

জনসাধারণের চোখে বরগুনা পৌরসভার নির্বাচন

  • রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০

 

বরগুনা জেলা প্রতিনিধি: মোঃশওকত জোমাদ্দার

বরগুনা জুড়ে বইছে ভোটের হাওয়া,বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী এই মাসেই ঘোষণা হবে নির্বাচনী তফসিল, নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য সকল মেয়র ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদ প্রার্থীর পৌর শহর জুড়ে চলছে দৌড় ঝাপ,চায়ের দোকান,পাড়ায় মহল্লায় বইছে উৎসব আমেজ। বরগুনার নির্বাচনে বর্তমান সময়ের সব থেকে আলোচিত যে নাম তা পৌর মেয়র জনাব মোঃ শাহাদাত হোসেনের, যিনি সাধারণ পৌর বাসীর কান্নাহাসির সার্বক্ষণিক সঙ্গী, বিগত ১০ বছরে এই কারিশমাটিক পৌরপিতা বরগুনা পৌরসভা কে একটি মডেল পৌরসভায় পরিনত করেছেন,বরগুনায় এখন তার কিংবদন্তি তুল্য জনপ্রিয়তা।

তার গল্পের শুরু টা ২০১০ সালের জানুয়ারি মাসে,একজন সফল ব্যবসায়ী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নমিনেশন পেয়ে প্রথম বার নির্বাচন করেই পৌর নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ী হলেন,যদিও তিনি বরগুনার সাধারণ মানুষের কাছে অপরিচিত কেউ ছিলেন না,শুরু থেকেই সাধারণ মানুষের সকল বিপদে পাশে থাকার জন্য ছিল তার আকাশ চুম্বি জনপ্রিয়তা,নিজের মত করে, আপন করে নিয়েছিলেন বরগুনার সকল সাধারণ মানুষকে।

উল্লেখ্য সারাবিশ্ব যখন প্রান ঘাতী করোনা মহামারী পরিস্থিতিতে, তখন তিনি কাজ করেছেন প্রান্তিক মাঠ পর্যায়ে গৃহবন্দি অসহায়দের নিয়ে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে প্রাথমিকভাবে ৬৯০০ মানুষের মাঝে খাদ্য, ওষুধ, মাস্ক বিতরন করেছেন, পরবর্তী পর্যায়ে ১২০০ মানুষের মধ্যে খাদ্য, ওষুধ ও মাস্ক বিতরন করেছেন, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের দাফনের ব্যবস্থা করেন তিনি, করোনায় কর্মহীন শ্রমজীবী মানুষের পাশে প্রথম থেকে এখন পর্যন্ত অর্থ সাহায্য করে আসছেন।

বরগুনার উপকূলীয় এলাকা থেকে শুরু করে পৌরসভার অসহায় হতদরিদ্র মানুষদের ঈদ, কোরবানি, পূজায় প্রতি বছর ৮-৯ হাজার শাড়ী ও ৩-৪ হাজার লুঙ্গী বিতরণ করেন যাতে তার সাধারণ জনগণ যাদের তিনি প্রানের থেকেও বেশী ভালবাসেন তাদের কেউ উৎসব থেকে বঞ্চিত না হয়।

কোন অসহায় পিতার মেয়ের বিয়ে, কোন ব্যক্তি টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেনা কারো পিতা মাতার দাফনের টাকা নেই, সাহায্যের দরকার, কোথাও কোন ধরনের উন্নয়ন দরকার তখন বরগুনার সাধারণ খেটে খাওয়া দিনমজুর ভাই বোনদের প্রথম যে নামটি মনে পরে তার নাম শাহাদাত হোসেন।

তার মেয়র হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন কালীন সময় বরগুনার মুসলিম সনাতন ধর্মাবলম্বী মানুষদের মধ্যে দারুণ হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশ তিনি তৈরি করেছেন। পৌরসভার হিন্দু সম্প্রদায়ের সকল সার্বজনীন মন্দির, শ্মশান, গণকবর আধুনিকায়ন নতুন মসজিদ, মন্দির তৈরি করেন। তাকে ভালোবেসে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ বরগুনা শ্মশান কমিটির সভাপতি নির্বাচন করেন এবং তিনি পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন দীর্ঘদিন।

বরগুনা পৌরসভার দৃশ্যমান সকল উন্নয়ন তার হাত ধরে এ কথা অস্বীকার করার উপায় সম্ভবত কারো নেই। উল্লেখযোগ্য নাথ পট্টি লেক, দুই লাইন সড়ক ব্যবস্থা, আধুনিক মাছবাজার, বাসস্ট্যান্ড, সিরাজ উদ্দিন কনভেনশন হল, বিজয় ৭১ স্তম্ভ, পানির ওভারহেড ট্যাংক, পৌরসভার সকল রাস্তাঘাট উন্নয়ন, পানি ও বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান সব মিলিয়ে বরগুনা পৌরসভা স্বমহিমায় উজ্জ্বল।

বিগত ২০১৬ সালের নির্বাচনে যদিও মেয়র শাহাদাত হোসেন বাংলাদেশ আওয়ামিলীগের নমিনেশন লাভে ব্যর্থ হন তবুও সাধারণ মানুষের চাওয়ায় তিনি স্বতন্ত্র নির্বাচন করতে বাধ্য হয়েছিলেন এবং সাধারণ জনগণ তাকে তাদের নিজেদের উন্নয়নের স্বার্থে বিপুল ভোটে বিজয়ী করেন,জনগণ যদি সকল ক্ষমতার উৎস হয় তবে সে কথা মেয়র শাহাদাত হোসেনের বেলায় শতভাগ প্রযোজ্য। যিনি ভালবেসে কাছে থেকে জয় করে নিয়েছেন মানুষের মন।
২০২০ ইং সালে তৃতীয় বারের মত তিনি পৌরসভার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে যাচ্ছেন, এবারের নির্বাচনে ও জনগণ সকল রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে পৌরপিতা হিসেবে তার উপরে আস্থা রাখবে এবং তাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করবে একথা নিঃসন্দেহে বলা যায়, এখন পর্যন্ত যত জন মেয়র প্রার্থীর নাম মাঠে শোনা যাচ্ছে জনমত জরিপে তাদের থেকে শতগুণ এগিয়ে আছেন জনপ্রিয় এই পৌরপিতা।

করোনা কালীন এই নির্বাচন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে বলে আশাবাদী,বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ও স্থানীয় প্রশাসন একটি অবাধ ও নিরেপক্ষ নির্বাচন বরগুনা পৌরবাসীকে উপহার দেবে এই প্রত্যাশায়

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

MD

Customized BY NewsTheme