1. bangladeshbartatelevision@gmail.com : admin :
  2. ridoyhasanjoy@gmail.com : Reporter-1 :
  3. journalistrhasan@gmail.com : Reporter-2 :
  4. bangladeshbarta1@gmail.com : Reporter-3 :
  5. abdullah957980@gmail.com : Ramjan Bhuiyan : Ramjan Bhuiyan

নড়াইলে মাছের ঘেরে ঔষধ প্রয়োগ করে প্রায়ই ১৫ লক্ষ টাকার চিংড়ী মাছ চুরির অভিযোগ@

  • সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০

 

৩০ নভেম্বর ২০২০, সোমবার,

মিশকাতুজ্জামান,নড়াইল জেলা প্রতিনিধি : নড়াইল সদর উপজেলার মাছপাড়া ইউনিয়নের বুড়ামারা গ্রামের নরেশ দেবের চিংড়ী মাছের ঘেরে ঔষধ প্রয়োগ করে প্রায় ১৫,০০,০০০, লক্ষ টাকার মাছ চুরির করে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গিয়াছে। ৩০ নভেম্বর (সোমবার) বিকালে ঘের মালিক নরেশ দেবের এক লিখিত অভিযোগ তিনি সাংবাদিক দের জানান আমি নরেশ দেব,পিতা নিরাপদ দেব বর্মন প্রায় দুই বছর আগে নড়াইল মাছপাড়া ইউনিয়নের তালে শ্বারি মৌজায় ২ একর বিলেন জমি ক্রয় করি।

পরে চলতি বছরের চার মাস আগে ওই জমির এক একরের মধ্যে একটি গলদা চিংড়ি মাছের ঘেরের চাষাবাদ শুরু করি। এ অবস্থায় গত ১০ নভেম্বর থেকে চিংড়ি বাজার জাত করতে তিনদিন যাবত পাম্পের মাধ্যমে পানি সরিয়ে ফেলছিলাম, এমন সময় ১৩ (নভেম্বর) রাত দুইটার দিকে পার্শ্ববর্তী তালেস্বারী গ্রামের সুভাষ বিশ্বাসের ছেলে মিঠু বিশ্বাস (২৮) সহ আরও আট দশ জন মিলে আমার চিংড়ি মাছের ঘেরে ঔষধ ঢেলে জ্বাল টানতে থাকে।

এ সময় আমি জ্বাল টানার শব্দ পেয়ে টর্চলাইট মারতেই অভিযুক্তরা দৌড় মারে। যাদের মধ্য থেকে আমি লাইটের আলোয় মিঠু বিশ্বাস (২৮) কে চিনায় ফেলি। বেশি রাত হয়ে যাওয়া ভোর রাতে আমার ওয়ার্ডের মেম্বার কে এব ওই ইউনিয়নের দায়িত্ব প্রাপ্ত বিট পুলিশের এস আই মফিজ কে সহ ঘেরর আসপাশের প্রতিবেশীদের জানাই।

এব্যাপারে এস আই মফিজ এর সাথে কথা হলে তিনি জানান আমি ঘটনা স্থলে সরেজমিনে যা-ই এবং নরেশ দেব বর্মন এবং ওই ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগ নেতা প্রতাব সহ আসপাশের লোকজন কে ডেকে ঘটনা জানতে চাইলে তারা জানান যেহেতু চুরির ঘটনা গভীর রাতে, আমর কেউই জানিনা বা সেখানে ছিলাম না। তবে ভোর সকালে ঘের মালিক নরেশ দেব বর্মন আমাদের জানিয়েছে এবং চুরি যাওয়া স্থল থেকে উদ্ধার হওয়া জ্বাল ও কিছু মরা চিংড়ি মাছ দেখাইয়াছে এতো টুকুই জানি।

তবে আসপাশের স্থানীয় একাধিক লোক সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার বেশ কিছুদিন আগে বুড়ামারা গ্রামের নরেশ দেব বর্মনের সাথে তালেস্বারী গ্রামের মিঠু বিশ্বাস এর সাথে একই এলাকার ঘালের মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে উভয়ের মধ্যে বেশ কথা কাটা কাটি হয়। এর কয়একদিন পরেই নরেশ দেব এর মাছের ঘেরের মাছ চুরি যাওয়ার ঘটনায় অনেকেই বিভিন্ন মতের সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে নরেশ দেব বর্মন সাংবাদিক দের জানান আমি কোন সমাধানের পথ না পেয়ে ১৩ ইং( নভেম্বর) কোন সমাধানের পথ না পাওয়ায় বিকালে নড়াইল সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করি। পরে গত (২৮ নভেম্বর) রবিবার নড়াইল এসে সাংবাদিক দের সাথে আমার ঘটনা সম্পর্কে বিস্তারিত প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে আমি আমার সত্য উদঘাটনে চেষ্টা করি এবং আপনাদের মাধ্যমে আমার ঘেরের গলদা চিংড়ি ধরে নেওয়া ও মেরে ফেলার ক্ষতি পুরন দাবি জানাই। পাশাপাশি অভিযুক্ত মিঠু ও সকল অপরাধী দের আইনের আওতায় এনে গ্রেফতারের দাবি জানাচ্ছি।

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

MD

Customized BY NewsTheme