1. bangladeshbartatelevision@gmail.com : admin :
  2. ridoyhasanjoy@gmail.com : Reporter-1 :
  3. journalistrhasan@gmail.com : Reporter-2 :
  4. bangladeshbarta1@gmail.com : Reporter-3 :
  5. abdullah957980@gmail.com : Ramjan Bhuiyan : Ramjan Bhuiyan

পটুয়াখালী শহরে কলাতলায় ১০ বছরের শিশুকে শ্লীলতাহানি করার অভিযোগ মামলা

  • বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২১

পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালী পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ দেলোয়ার হোসেন আকঁনের আপন চাচা আলহাজ্ব নুরুল হক মোক্তার আকঁন (৬৫) এর বিরুদ্ধে (১০) বছরের শিশুকে শ্লীলতাহানি করায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। যাহার মামলা নং-(১০), ধারা- নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী- ২০০৩ ইং ৯(১) মোতাবেক মামলা রুজু করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১২-জানুয়ারি-২০২১ ইং) তারিখ পটুয়াখালী সদর থানায় ভিকটিমের মা বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।উল্লেখ্য আসামি নুরুল হক মোক্তার পৌরসভার ৮নং কাউন্সিলর এর আপন চাচা। শ্লীলতাহানির ঘটনা ধামাচাপা দিতে একটি কুচক্রী মহল ভুক্তভোগী পরিবারকে অর্থ লেনদেন করে শালিস মিমাংশার চেষ্টা চালানো হয়।

জানাগেছে, পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের কলাতলা বাবড়ী মসজিদ সংলগ্ন আসামি নুরুল হক মোক্তার আকঁন (৬৫), পিতাঃ মৃত মানিক আকঁন এর বাসায় কাজ করতো ভিকটিম (১০), শিশুটি গরীব অসহায় তাই শ্লীলতাহানির ঘটনা ধামাচাপা রাখার জন্য ভয়ভীতি দেখানো হয় এবং কাউকে কিছু জানালে মেরে ফেলার হুমকি দেয়া হয়।

এবিষয়ে ভিকটিম এর মা বলেন, আমার অবুজ মেয়েটাকে কাজের কথা বলে বাসায় রেখে দিনের পর দিন তার উপরে অমানবিক অত্যাচার চালিয়ে জীবনটাকে নষ্ট করে দিলো।আমরা গরীব বলে ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে।তিনি আরও বলেন, বিভিন্ন সময় মেয়ের সাথে দেখা করতে গেলে দেখা করতে দিতো না খারাপ আচরণ করতো।পরে মেয়েকে বাসায় আনার পর অসুস্থ দেখে জিজ্ঞেস করার পরে ঘটনা জানতে পারি।এবং পটুয়াখালী ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট সদর হসপিটালে নিয়ে গেলে হসপিটাল থেকে টেষ্ট দেয়া হয় । তিনি কেঁদে কেঁদে মিডিয়ার সামনে বলেনে এরা মানুষ না অমানুষ আমি আমার ফুলের মত শিশুর জীবন নষ্টকারীর কঠোর বিচার চাই।তিনি আরও বলেন, ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য আসামির ভাগিনা শহিদুল ইসলাম ভিকটিম শিশু (১০) কে জবাই করার জন্য গলায় বটি ঠেকিয়ে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে ঘটনা গোপন রাখতে বলে।

ভিকটিমের বাবা বলেন, আমি একজন রিকশা চালক দিন আনি দিন খাই।ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য নুরুল হক মোক্তার আকঁন দেড় লক্ষ টাকা নিয়ে চুপ হয়ে যেতে বলে।তার আত্মীয় স্বজনরা এলাকার প্রভাবশালী ও কমিশনার। আমি আইনের কাছে যেন না যেতে পারি সেজন্য আমার মেয়ে, ও স্ত্রীকে বাসা থেকে উঠিয়ে নেয়ার জন্য সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে সারা রাত চেষ্টা চালায়। জীবন বাচাঁতে বাসা রেখে গভীর রাতে প্রচন্ড শীতে বিলের মাঝখানে লুকিয়ে থাকতে হয়েছে। এছাড়াও পরিবার পরিজনদের নিয়ে খুবই আতঙ্কে রয়েছেন ও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানায় । তিনি আইনের কাছে সুবিচারের চেয়ে আসামির কঠোর শাস্তির দাবি করেন।

এ বিষয়ে পটুয়াখালী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আকতার মোর্শেদ বলেন, থানায় ভিকটিমের মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। আইন তার সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণ করবে বলে জানান

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

MD

Customized BY NewsTheme